পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর | পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট অনলাইন

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর | পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট -  প্রতিবছর বিদেশে গমনের জন্য প্রায় সাড়ে সাত লাখ বাংলাদেশী নাগরিককে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট দিতে হয় ।

আরও পড়ুন: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ফোন নাম্বার | Biman Bangladesh Airlines phone number

এর জন্য অনেকেই অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর এবং পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর নিয়মাবলী খুঁজে থাকেন । বর্তমানে অনেক সহজ পদ্ধতিতে অনলাইনের মাধ্যমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর জন্য আবেদন করা যায় ।

আরও পড়ুন: বারডেম হাসপাতালের ঠিকানা এবং ডাক্তারদের তালিকা

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর

আরও পড়ুন: বাচ্চাদের জন্ম নিবন্ধন করার নিয়ম ২০২২

আজকে তাদের জন্যই এই আলোচনায় বলবো যে কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে ঝামেলা ছাড়া বা জামেলা মুক্তভাবে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর জন্য আবেদন করবেন, এই আবেদন করতে আপনার কি কি দরকার হবে এবং পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর – এর বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স কি?

সাধারণত চাকুরি বা উচ্চশিক্ষার্থে বিদেশ গমণের ক্ষেত্রে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রয়োজন হয় । এই সার্টিফিকেটে সার্টিফিকেট প্রাপ্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় কোনো ফৌজদারী অপরাধের রেকর্ড নেই - এই মর্মে প্রত্যয়ন পত্র বা সার্টিফিকেট প্রদান করা হয় ।

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ফরম

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের জন্য http://pcc.police.gov.bd এ আবেদন করা যায়। সরাসরি আবেদন করতে সংশ্লিষ্ট জেলার ডিএসবি অফিস (পুলিশ সুপারের কার্যালয়) থেকে আবেদন ফর্ম সংগ্রহ করে আবেদন করতে পারবেন ।

আরও পড়ুন: এভারকেয়ার হাসপাতালের ঠিকানা ও ডাক্তারদের তালিকা

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর
পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার নিয়ম

অন্য পোস্ট: ম্যারাডোনার ফুটবল খেলা | ডিয়েগো ম্যারাডোনা

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার নিয়ম (অনলাইনে)

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর জন্য এখন আর থানায় যাওয়ার দরকার নাই । অনলাইনের মাধ্যমেই পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর আবেদন করা যায় অনলাইনের মাধ্যমে । পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর আবেদন করতে কি কি করবেন বা করতে হবে তা নিম্নে ধারাবাহিক ভাবে উল্লেখ করা হলো ---

প্রথম ধাপ: প্রথমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর জন্য নির্ধারিত ওয়েবসাইটে যেতে হবে এবং শুরুতেই নিবন্ধিত হতে হবে । এর জন্য আপনার নাম, ইমেইল এড্রেস, ফোন নাম্বার এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে নিবন্ধন নিশ্চিত করতে হবে ।

দ্বিতীয় ধাপ: এরপর আপনার মেইলে একটি মেইল আসবে সেখানে ভেরিফাই মাই একাউন্ট লিংকে ক্লিক করুন অথবা মোবাইল মেসেজ অপশনে গিয়ে ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত কোডটি লিখে ৬৯৬৯ নাম্বারে সেন্ড করুন এবং নিবন্ধন নিশ্চিত করুন ।

তৃতীয় ধাপ: নিবন্ধন নিশ্চিত হওয়ার পর নির্ধারিত ওয়েবসাইটে লগইন করে এ্যাপলাই নাও মেনুতে ক্লিক করলে একটি আবেদন ফর্ম আসবে যা আপনাকে সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে ।

চতুর্থ ধাপ: আবেদন পত্রের প্রথম ধাপে ব্যক্তিগত বিস্তারিত তথ্য এবং দ্বিতীয় ধাপে বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা সঠিকভাবে পূরণ করতে হবে । মনে রাখবেন আপনার বর্তমান ঠিকানা মেট্রোপলিটন এলাকা বা যে জেলাতে অবস্থিত সেই ঠিকানায় পুলিশ ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হবে ।

পঞ্চম ধাপ: এরপর এন আই ডি কার্ড অর্থাৎ জাতীয় পরিচয় পত্রের স্ক্যান কপি, প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা দ্বারা সত্যায়িত আপনার পাসপোর্ট এর স্ক্যান কপি, আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের স্ক্যান কপি, ওয়ার্ড কাউন্সিলর কতৃক প্রদত্ত নাগরিক সনদের স্ক্যান কপি অ্যাটাচ করুন ।

আরও পড়ুন: ঢাকা স্কয়ার হাসপাতালের ঠিকানা ও ডাক্তারদের তালিকা

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর
ট্রেজারি চালান নমুনা

আরও পড়ুন: Upay মোবাইল ব্যাংকিং বিস্তারিত ২০২২ | Upay Mobile Banking Details 2022

ষষ্ঠ ধাপ: সবশেষে পে-অফলাইন বাটনে ক্লিক করুন । বাংলাদেশ বা সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখা থেকে কোড করা (১-২২০১-০০০১-২৬৮১) ৫০০ টাকা মূল্যমানের ট্রেজারি চালান এর স্ক্যান কপি অ্যাটাচ করুন ।

সকল যাচাই-বাছাই সম্পন্ন হওয়ার পর নির্ধারিত তারিখের মধ্যেই পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট হাতে পেয়ে যাবেন ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স কোড

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার জন্য বাংলাদেশ বা সোনালী ব্যাংকের যে কোনো শাখায় ৫০০ টাকা ট্রেজারি চালান জমা দিতে হয় একটি কোডের মাধ্যমে । সেই কোডটি হলো (১-২২০১-০০০১-২৬৮১) । এই টাই মূলত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স কোড ।

পুলিশ হেল্প লাইন নাম্বার

যেকোনো সহায়তার জন্য বাংলাদেশ পুলিশ এর ওয়েবসাইটের হোমপেজের নিচের ডানদিকের কোণায় অবস্থিত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পডেস্ক চ্যাটবট-এর সাথে যোগাযোগ করুন । অথবা সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন হেল্পলাইন নাম্বারে ।

হেল্পলাইন নাম্বার: ১০৩২০০০১৮২৪ বা ০১৩২০০০১৮২৫ ।

অবশ্যই রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৯:০০ থেকে সন্ধ্যা ৬:০০ পর্যন্ত । সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত ।

ওয়েবসাইট: https://pcc.police.gov.bd/

ইমেইল এড্রেস: ssaphq@gmail.com

পুলিশ হেল্প লাইন হেডকোয়ার্টার্স ঠিকানা

সিনিয়র সিস্টেমসএনালিস্ট

বাংলাদেশ পুলিশ

পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স

৬, ফিনিক্স রোড, ফুলবাড়িয়া

ঢাকা – ১০০০ ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট যাচাই

আপনার পুলিশ ক্লিয়ারেন্স আবেদনের সর্বশেষ অবস্থা জানতে বা যাচাই বরতে PCC S এর পর আপনার আবেদনের রেফারেন্স নম্বর লিখে যে কোন মোবাইল থেকে Massage লিখে সেন্ড করুন ২৬৯৬৯ নম্বরে । ফিরতি SMS এ আপনার আবেদনের সর্বশেষ স্ট্যাটাস পেয়ে যাবেন ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ই চালান

বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন সেবার ফি সমূহ ব্যাংকে জমা দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনেও জমা দেওয়ার পদ্ধতি চালু করেছে । প্রাথমিক ভাবে সোনালী ব্যাংকের গেটওয়ের মাধ্যমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ফি, পাসপোর্ট ফি এবং জাতীয় পরিচয়পত্র ফি জমা প্রদানের সুবিধা দিতে সরকার প্র্রাপ্তি বাতায়ন চালু করেছে ।

যেমন – পুলিশ ক্লিয়ারেন্স এর ক্ষেত্রে যে ৫০০ টাকা ট্রেজারি চলান জমা দেতে হয় তা এই সেবা থেকে দেওয়া যাবে । গ্রাহককে স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোট চালান সংখ্যা ও অর্থ জমা প্রদানের তথ্য প্রদান করবে অনলাইনের মধ্যমে । এটাই মূলত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ই চালান ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স মেয়াদ কতদিন?

প্রার্থী একটি পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সনদ নিলে মেয়াদ বাংলাদেশ থেকে বিদেশ আগ পর্যন্ত থাকে । আর যদি সে বিদেশ না যায় তাহলে এর মেয়াদ ৬মাস পর্যন্ত থাকে বলে জানা গেছে । আবার প্রার্থী ৬ মাস পর যদি বিদেশ যেতে ইচ্ছুক হয়ে তাহলে পুনরায় পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সংগ্রহ করতে হবে ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কতদিনে পাওয়া যায়

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করলে যদি প্রার্থী ঢাকার ঠিকানায় বসবাস করেন তাহলে ০৭ দিন এবং ঢাকার বাহিরে বসবাস করলে ১০ দিন সময় লাগতে পারে । যদি আরও অন্য কোনো সমস্যা হয় সে ক্ষেত্রে আরও ৫-৬দিনে বেশি লাগতে পারে । সাধারণত ৭-১০দিন সময়ের বেশি লাগার কথা নয় ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নমুনা

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর
পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নমুনা

অন্য পোস্ট: নগদ ইসলামিক একাউন্ট | নগদ ইসলামিক অ্যাপ

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স চালান

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার জন্য বাংলাদেশ বা সোনালী ব্যাংকের যে কোনো শাখায় কোডের মাধ্যমে (১-২২০১-০০০১-২৬৮১) ৫০০ টাকা ট্রেজারি চালান জমা দিতে হয় । এটাই মূলত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স চালান ।

পুলিশ অভিযোগ কেন্দ্র

আপনি যদি কোনো কারনে বাংলাদেশ পুলিশের সহায়তা চান তাহলে বাংলাদেশ পুলিশের অধীনে পরিচালিত জরুরি কল সেন্টার হচ্ছে ৯৯৯ জরুরি সেবা নামে পরিচিত । এই সেবাতে শুধু মাত্র পুলিশ নয়, ফায়ার সার্ভিস এবং এ্যাম্বুলেন্স সেবাও পাওয়া যাবে । সপ্তাহে ৭দিন ২৪ ঘন্টা এই সেবা পাওয়া যাবে ।

প্রবাসী সহায়তা সেল

বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশি নাগরিক যদি দেশের কোনো সমস্যার কারণে বাংলাদেশ পুলিশের সহায্য নিতে পারেন । এ জন্য বাংলাদেশ পুলিশের সদরদপ্তরে “প্রবাসী সহায়তা সেল” চালু রয়েছে । কেউ চাইলে সরাসরি ফোন করতে পারেন (+৮৮ ০১৭৬৯ ৬৯০০১৯) এই নাম্বারে । চাইলে ইমেইলও করতে পারেন expatriatehelp@police.gov.bd ঠিকানায় ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কিভাবে পাবো

যদি মেট্রোপলিটন এলাকায় হয় তবে সংশ্লিষ্ট মেট্রোপলিটন হেডকোয়ার্টার্স এর ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার থেকে । আর জেলার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট জেলার ডিএসবি অফিস বা পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সিলেট

সিলেট অঞ্চলে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সহজ করার জন্য সিলেট পুলিশ সুপারের কার্জালয়ে নিরপেক্ষ কাউন্টার খোলা হয়েছে । সেখানে সার্বক্ষণিক সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে মনিটরিং করা হয় যাতে কোনো প্রকার দুর্নীতি না হয় । এই উদ্বোগ প্রসংশণীয় ।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ এর আওতাধীন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন এলাকার অভ্যন্তরে অবস্থানরত নাগরিকদের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, লালদিঘী, চট্টগ্রাম এর (পুলিশ কমিশনার অফিস সংলগ্ন সিটি স্পেশাল ব্রাঞ্চ) পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ওয়ান স্টপ সার্ভিস কক্ষে থেকে এই সেবা পাওয়া যাবে ।

বন্ধুরা আশা করি আজকের "পুলিশ ক্লিয়ারেন্স হেল্পলাইন নম্বর | পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট অনলাইন" আলোচনা আপনাদের ভালো লেগেছে । এই রকম আনকমন এবং আপডেট সমস্ত লেখা পেতে চোখ রাখুন “বাংলা আইটি ব্লগ ৩৬০” ব্লগে । এছাড়াও যদি আরও কোনও বিষয়ে লেখা পড়তে চান তাহলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন । আজ এ পর্যন্তই । আল্লাহ হাফেজ ।।


আরও পড়ুন: বাচ্চাদের ই-পাসপোর্ট করার নিয়ম ২০২২ | Rules for E-Passport for Children 2022

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url