ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা | Freelance Marketplace List

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা | Freelance Marketplace Listবর্তমান সময়ে এদেশের তরুণ-তরুণীদের কাছে সবথেকে আলোচিত বিষয়টি হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং । দক্ষিণ এশিয়া তথা ভারত, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশের নতুন প্রজন্মের কাছে একটি প্রত্যাশিত নাম ফ্রিল্যান্সিং । আমাদের দেশে ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে চিন্তাভাবনা খুব বেশিদিনের নয় ।

অন্য পোস্ট: এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লেখার নিয়ম | Rules for Writing SEO Friendly Articles

কিন্তু এরই মধ্যে অনেকেই ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্যকে সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন করতে সক্ষম হয়েছেন । ফ্রিল্যান্সিং এর ব্যাপারে দেশের বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় অনেক উৎসাহমূলক লেখালিখিও হয়েছে এবং হচ্ছে ।

অন্য পোস্ট: SEO কাকে বলে | SEO কিভাবে কাজ করে | What is SEO and How Does SEO work?

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা

অন্য পোস্ট: বাংলায় কিওয়ার্ড রিসার্চ ২০২২ । বাংলায় কিওয়ার্ড রিসার্চ এর পাঁচটি টুলস

আজকের “বাংলা আইটি ব্লগ ৩৬০”-এর ব্লগ পোস্টে পাঠকদের চাহিদা অনুসারে “ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা | Freelance Marketplace List” নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করলাম । আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে ।

ফ্রিল্যান্সিং বাংলাদেশ

লেখাপড়া শেষে বা লেখা পড়ার সাথে সাথে ফ্রিল্যান্সিং এ গড়ে নিতে পারেন আপনার ভবিষ্যতের ক্যারিয়ার । ফ্রিল্যান্সিং এমনই একটি বিষয় যেটা বিশ্ববাজারের প্রায় বিলিয়ন ডলারের একটি বিশাল বাজার । উন্নত দেশগুলো কাজের মূল্য কমানোর জন্য আউটসোর্সিং করে থাকে । 

আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত এবং পাকিস্তান সেই সুযোগটি খুব ভালোভাবে কাজে লাগিয়েছে । ফ্রিল্যান্সিংয়ে আমাদের দেশও খুব বেশি পিছিয়ে নেই । ফ্রিল্যান্সিংয়ের বিশাল বাজারের আমরাও কিছুটা হলেও অংশীদার ।

ফ্রিল্যান্সিং কি

ফ্রিল্যান্সিং হচ্ছে গতানুগতিক চাকরির বাইরে নিজের ইচ্ছামত কাজ করার স্বাধীনতাকেই ফ্রিল্যান্সিং বলে । ইন্টারনেটের কল্যানে এখন আপনি খুব সহজেই একজন ফ্রিল্যান্সার হিসাবে আত্মপ্রকাশ করতে পারেন । 

এখানে রয়েছে আপনার যখন ইচ্ছা তখন কাজ করার স্বাধীনতা, তেমনি রয়েছে বিভিন্ন ধরনের কাজ বাছাই করার স্বাধীনতা । আয়ের দিক থেকেও অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং এ রয়েছে অভাবনীয় সম্ভাবনা । অনলাইনে প্রতিমুহূর্তে নতুন নতুন কাজ আসছে আর উন্মুক্ত হচ্ছে সম্ভাবনাময় আয়ের বিশাল দুয়ার ।

ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ সমূহ

ফ্রিল্যান্সিংয়ে বিভিন্ন রকমের কাজ রয়েছে । এক বা একাধিক কাজের ক্ষেত্রে আপনি সফলভাবে নিজেকে একজন সেরা ফ্রিল্যান্সার হিসাবে তৈরী করে নিতে পারেন । তবে প্রথম দিকে আপনাকে একটু ধৈর্য ধারণ ও কাজ করে নিজেকে সফলভাবে ফ্রিল্যান্সিং জগতে প্রতিষ্ঠা করার জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে । 

নিম্নে ফ্রিল্যান্সিং এর কাজের ধরন সম্পর্কে কিছুটা ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করলাম……

  • গ্রাফিক্স ডিজাইনিং
  • ওয়েব ডেভেলপমেন্ট
  • প্রোগ্রামিং
  • ভিডিও গেম
  • থ্রিডি এনিমেশন
  • অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট
  • প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট
  • সফটওয়্যার বাগটেস্টিং
  • একাউন্টিং, হিউম্যান রিসোর্স, লিগাল
  • ইঞ্জিনিয়ারিং
  • ফটোগ্রাফি
  • ইন্টার্নেট মার্কেটিং/ডিজিটাল মার্কেটিং
  • আর্টিকেল রাইটিং/কনটেন্ট রাইটিং
  • ডাটা এন্ট্রি
  • এডমিন সাপোর্ট
  • সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট
  • কাস্টমার সাপোর্ট
  • কনসালটেন্সি ইত্যাদি

কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব

ইন্টারনেট থেকে কাজ করার চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে । নতুন প্রজন্মের অনেকেই ফ্রিল্যান্সিং-এ ক্যারিয়ার গড়তে চান । কিভাবে ফ্রিল্যান্সিং একাউন্ট খুলব? এটি একটি কমন প্রশ্ন । তাই নতুনেরা প্রায়শই এই প্রশ্নটি করে থাকেন । এর উত্তর হচ্ছে অনলাইনে আয় করার জন্য যে মার্কেট প্লেসগুলো রয়েছে, যেমন - আপওয়ার্ক ডট কম, ফাইবার ডট কম, পিপল পার আওয়ার, ফ্রিল্যান্সার ডট কম, গুরু ডট কম ইত্যাদি ।

এই সাইটগুলোতে প্রফাইল একাউন্ট খোলার বিশেষ পদ্ধতি রয়েছে । এই বিষয়ে জানতে চাইলে গুগল বা ইউটিউবের সাহায্য নিতে পারেন । একাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে কাজ পাওয়ার আগ পর্যন্ত সব কিছু খুব সহজে জানতে পারবেন ।

বর্তমান জেনারেশনের মানুষরা নিজের বাসায় বসে ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ করে স্বাবলম্বী হচ্ছে । বিশেষ করে তরুন প্রজন্ম চাকরির চিন্তা না করে freelancing এর মাধ্যমে unlimited income করছে । আপওয়ার্ক ডট কম, ফাইবার ডট কম, পিপল পার আওয়ার, ফ্রিল্যান্সার ডট কম, গুরু ডট কম ইত্যাদি সাইটগুলোতে একটি একাউন্ট তৈরী করে সহজেই আয় করতে পারবেন ।

ফ্রিল্যান্সিং শেখার বই

বাংলা ভাষায় ফ্রিল্যান্সিং শেখার বিভিন্ন বই রয়েছে । এই বই সমূহ পড়ে আপনি ফ্রিল্যান্সিং-এর প্রথমিক ধারনা সহ যাবতীয় জানতে পারবেন । আপনাদের সুবিধার জন্য নিম্নে কিছু বয়ের তালিকা উল্লেখ করলাম । নিচের বইগুলো কিনে পড়তে পারেন বা অনলাইন থেকে PDF Download করেও পড়তে পারেন । বইগুলো হচ্ছে -----

  • ফ্রিল্যান্সিং ও ইন্টারনেট আয়
  • ফ্রিল্যান্স গাইডলাইন – আল আমিন কবির
  • ফ্রিল্যান্সিং গুরু – মোঃ ইকরাম
  • ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা
  • ইন্টারনেট থেকে আয় – ফ্রিল্যান্সার নাসিম
  • অনলাইন আর্নিং – আইটি বাড়ি ডট কম
  • হাবলুদের ফ্রিল্যান্সিং – জয়িতা ব্যানার্জী
  • ফ্রিল্যান্সার ডট কম – মাহবুবুর রহমান
  • ইল্যান্স গাইডলাইন – আল আমিন কবির

বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সারের সংখ্যা কত

ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশনের (আইএলও) ২০২০ সালের প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, বাংলাদেশে অন্তত ৬ লাখ লোক প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে এই পেশার সঙ্গে জড়িত আছে । তবে তারা জানিয়েছে ২০১৮ সালের তুলনায় ২০২০ সালে অনলাইন লেবার সাপ্লাই কমেছে । আসলে বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সারের সংখ্যা কত-এর সঠিক তথ্য কারও কাছে পাওয়া যায়নি ।

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস তালিকা

উপরোল্লিখিত কাজগুলো বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে এর মাধ্যমে অর্থের বিনিময়ে করানো হয়ে থাকে । এই কাজগুলো যেখানে করানো হয় সেগুলোকে সাধারণত মার্কেটপ্লেস বলা হয় । নিম্নে পাঁচটি জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে আলোচনা করা হলো ।

আপওয়ার্ক ডট কম

ওডেক্স ছিল আপওয়ার্কের পুরাতন নাম । ওডেক্স ১৯৯৮ সালে সর্বপ্রথম ফ্রিল্যান্সিং এর আইডিয়া নিয়ে অনলাইন মার্কেটে আসে । এরপর ২০০৩ সালে ওডেক্স প্রতিষ্ঠিত হয় । ওডেক্স প্রতিষ্ঠার পরপরই বিপুল জনপ্রিয়তা পায় । সারা বিশ্বের বহু ফ্রিল্যান্সার এখানে কাজ করা শুরু করে ।

২০১৫ সালে ওডেক্স এর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় আপওয়ার্ক । বর্তমান আপওয়ার্ক হলো ফ্রিল্যান্সিং কাজের জগতে একটি অন্যতম মার্কেটপ্লেস । আপওয়ার্ক মার্কেটপ্লেসে প্রায় ১৯ মিলিয়ন (১.৯ কোটি) ফ্রিল্যান্সার রয়েছে । পাশাপাশি ৫ মিলিয়ন (৫০ লক্ষ) ক্লায়েন্ট রয়েছে ।

আপওয়ার্ক এর জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে । উপরোল্লেখিত কাজগুলো করার সুযোগ এখানে রয়েছে । আপওয়ার্কে সাধারণত ফিক্সড বা ঘন্টা চুক্তি রেটে কাজ করা যায় । আপওয়ার্ক এর পেমেন্ট আপনি পেওনিয়ার, পেপাল এবং ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে নিতে পারবেন ।

ফাইবার ডট কম

অনলাইন জগতে ফ্রিল্যান্সিংয়ের ক্ষেত্রে আরেকটি জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস হচ্ছে ফাইবার ডট কম । ফাইবার ২০১০ সালে তাদের যাত্রা শুরু করে । বলা চলে প্রতিদিনই এই মার্কেটপ্লেসের চাহিদা বেড়েই চলেছে । অনলাইনে ফাইবার মার্কেটপ্লেস এর কাজের সংখ্যা এতই বেশি যে, ফ্রিল্যান্সার কর্তৃক প্রতি ৫ মিনিটে একটি করে নতুন গিগ প্রকাশিত হয় । গিগ হল ফ্রিল্যান্সারদের কাজের দক্ষতার পরিচিতি ।

এই মার্কেটপ্লেসে আপনি সর্বনিম্ন ৫ ডলার এবং সর্বোচ্চ ১০ হাজার ডলারের কাজ পেতে পারেন । তবে এখানে আপওয়ার্ক এর মত ঘন্টা ভিত্তিক কাজের সুযোগ নেই । এখানে গিগ এর মাধ্যমে আপনি ক্লায়েন্টের অর্ডার নিয়ে কাজ করতে পারেন । ফাইবারে উপরোল্লেখিত কাজসহ বিভিন্ন কাজ করার সুযোগ রয়েছে । কাজ করার পর পেমেন্ট এর জন্য এখানে আপনি পেওনিয়ার, পেপাল অথবা ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে নিতে পারবেন ।

পিপল পার আওয়ার

অনলাইন জগতে যতগুলো ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস রয়েছে তাদের মধ্যে পিপল পার আওয়ার অন্যতম । অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলোর সাথে পাল্লা দিয়ে পিপল পাওয়ার মার্কেটপ্লেসও এগিয়ে চলেছে । ফ্রিল্যান্সিং সাইট পিপল পার আওয়ার এর যাত্রা শুরু হয় ২০০৭ সালে । বর্তমানে এখানে প্রায় ১৬ লক্ষ এর অধিক ফ্রিল্যান্সার কাজ করছে । এই সাইটে সাধারণত ঘন্টা ভিত্তিক হিসাবে কাজ করানো হয় ।

তবে পিপল পার আওয়ারে কাজ পাওয়া বেশ কঠিন ব্যাপার । পিপল পার আওয়ার মার্কেটপ্লেসে আপনি যদি কাজ করতে চান প্রথমদিকে আপনাকে বেশ ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে হবে । তবে আপনি মার্কেট এনালাইসিস করে যদি সঠিক প্রাইস এবং সার্ভিস দিতে পারেন তাহলে কাজ পাওয়াটা আপনার জন্য খুব বেশী কঠিন হবে না । অন্যান্য মার্কেটপ্লেস গুলোর মত এখানেও আপনি পেওনিয়ার, পেপাল অথবা ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে আপনার পেমেন্ট নিতে পারবেন ।

ফ্রিল্যান্সার ডট কম

ফ্রিল্যান্সার ডট কম ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোর মধ্যে অন্যতম আরেকটি সাইট । ফ্রিল্যান্সারদের কাছে এই সাইটটি বেশ জনপ্রিয় । আপনি অন্যান্য মার্কেটপ্লেস গুলোর মতো এখানেও উপরোল্লিখিত কাজগুলো করতে পারবেন । ফ্রিল্যান্সার ডট কম ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস হিসেবে যাত্রা শুরু করে ২০০৯ সালে । এই মার্কেটপ্লেসে বর্তমানে প্রায় ৩.৩ কোটি ফ্রিল্যান্সার রয়েছে । পাশাপাশি ক্লায়েন্টের সংখ্যাও অনেক বেশি ।

আপনি যদি ফ্রিল্যান্সিং সাইটে আপনার ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে ফ্রিল্যান্সার ডট কম মার্কেটপ্লেসকে বেছে নিতে পারেন । এই মার্কেটপ্লেস থেকেও আপনি পেওনিয়ার, পেপাল অথবা ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন ।

গুরু ডট কম

গুরু ডটকম মূলত একটি ইউএসএ/আমেরিকা ভিত্তিক ফ্রিল্যান্সিং সাইট । গুরু ডট কম এর যাত্রা শুরু হয় ২০০১ সালে । অন্যান্য মার্কেটপ্লেস গুলোর মত এটিও ফ্রিল্যান্সারদের কাছে বেশ জনপ্রিয় । এই মার্কেটপ্লেসে মূলত ভারতের ফ্রিল্যান্সাররা বেশি কাজ করে ।

বর্তমানে গুরু ডট কমে প্রায় ১৫ লক্ষের অধিক ফ্রিল্যান্সার কাজ করে থাকে । এই মার্কেটপ্লেসে আপওয়ার্ক এর মত ঘন্টা ভিত্তিক হিসেবে কাজ করা যায় । কাজ করার পর আপনি পেওনিয়ার, পেপাল এবং ব্যাংক ট্রান্সফারের মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন ।

আপনাদের প্রশ্ন ও উত্তর

১। প্রশ্নঃ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট প্লেস কাকে বলে?

উত্তরঃ ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট প্লেস হচ্ছে একধরনের অনলাইন ভিত্তিক কাজের স্থান, যেখানে ফ্রিল্যান্সারা বিভিন্ন অনলাইন ভিত্তিক কাজ করতে পারে । ক্লায়েন্টরা এইসব সাইটে ফ্রিল্যান্সাদের বিভিন্ন কাজের অফার করে থাকে অর্থের বিনিময়ে । এই সকল কাজের স্থানকে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট প্লেস বলা হয় । উল্লেখযোগ্য মার্কেট প্লেস গুলোর মধ্যে রয়েছে – ফাইবার, আপওয়ার্ক, ফ্রিল্যান্সার ডট কম ইত্যাদি ।

২। প্রশ্নঃ মার্কেট প্লেসে কিভাবে একাউন্ট করতে হয়?

উত্তরঃ বিভিন্ন মার্কেট প্লেস ফ্রিল্যান্সারদের কাজ করার সুবিধা দিয়ে থাকে । কারন তাদের চাহিদা ধরে রাখার জন্য ফ্রিল্যান্সারদের দরকার পড়ে । তাই মার্কেট প্লেসগুলোতে খুব সহজে একাউন্ট করা যায় । তবে একেক মার্কেট প্লেসে একেক ধরনের Requirement থাকে । এইগুলো জানা থাকলে মার্কেট প্লেসগুলোতে একাউন্ট করা যায় সহজেই ।

৩। প্রশ্নঃ কোন মার্কেটপ্লেস সব থেকে জনপ্রিয়?

উত্তরঃ সারা বিশ্বে হাজার হাজার মার্কেটপ্লেস রয়েছে । সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ফ্রিল্যান্সাররা এইসব মার্কেটপ্লেস গুলোতে কাজ করে । তবে সব থেকে জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস গুলোর মধ্যে – ফাইবার ডট কম, আপওয়ার্ক ডট কম, পিপল পার আওয়ার, ফ্রিল্যান্সার ডট কম, গুরু ডট কম উল্লেখযোগ্য ।

বন্ধুরা আশা করি আজকের "এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লেখার নিয়ম | Rules for Writing SEO Friendly Articles" আলোচনা আপনাদের ভালো লেগেছে । এই রকম আনকমন এবং আপডেট সমস্ত লেখা পেতে চোখ রাখুন “বাংলা আইটি ব্লগ ৩৬০” ব্লগে । এছাড়াও যদি আরও কোনও বিষয়ে লেখা পড়তে চান তাহলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করুন । আজ এ পর্যন্তই । আল্লাহ হাফেজ ।।


আরও পড়তে পারেন: Upay মোবাইল ব্যাংকিং বিস্তারিত ২০২২ | Upay Mobile Banking Details 2022

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url